ব্লগে পলিসি ভাইলেশন কী? Blogg a policy violation fixed করার উপায়।

policy violation image

ব্লগে পলিসি ভাইলেশন কী? Blogg a policy violation fixed করার উপায়।  

একজন ব্লগারের কাছে প্রথম স্বপ্ন হল তার সাইটে গুগল অ্যাডসেন্স এপ্রুভ করা। কিন্তু সহজে অনেক সময় গুগল অ্যাডসেন্স এপ্রুভ পাওয়া কষ্ট কর হয়ে যায়। কারণ গুগলের কিছু নির্দিষ্ট রুল ও নিয়ম রয়েছে, আর কেউ সেই গুলো লঙ্ঘন করলে গুগল তাকে পার্টনারশিপ দেয় না। 


এছাড়াও একজন ব্লগারের কাছে সবচেয়ে বিরক্ত কর লাগে যখন তার সাইটে policy violation আসে। কেননা, গুগল অ্যাডসেন্স কখনও সরাসরি এটা বলে না যে, আসলে কি করণে তার সাইটে এই policy violation সমস্যাটা আসছে। তাই অনেক সময় আমরা সেই সমস্যা গুলো সমাধানও করতে পারিনা আর সর্বশেষ স্বপ্নকে কবর দিয়ে ব্লগিং পেশা থেকে দুরে সরে আসি। 


তাই আজকে আমি ব্লগে policy violation এর প্রধান কারণ গুলো কি বা কেন পলিসি ভাইলেশন আসে সেটি নিয়ে আলোচনা করব। আসা করি পোস্টি আপনাদের সমস্যা উত্তরণের প্রধান ভূমিকা পালন করবে।


পলিসি ভাইলেশন কী?

Policy violation অর্থ হলঃ নীতি লঙ্ঘন। প্রত্যেক কম্পানির নির্দিষ্ট কিছু আইন, নিয়ম ও রুল থাকে। আর আপনি যদি ভুল বা ইচ্ছে বশত তাদের ঐ সকল নীতিমালা লঙ্ঘন বা অস্বীকার করেন তাহলে সেই কম্পানি আপনার বিরুদ্ধে কিছু আইনানুগত ব্যবস্থা নিবেন। যেটা নীতি লঙ্ঘন নামে পরিচিত।


একটা ব্লগ সাইটে অনেক গুলো কারণে policy violation সমস্যা আসতে পারে। 

১/ কপি কনটেন্ট

ব্লগে গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার প্রধান শর্ত হল ইউনিক কনটেন্ট। তাই আপনি যদি কখনও কারো কনটেন্ট কপি বা চুরি করেন তাহলে গুগল কখনও এ বিষয় ছাড় দিবে না। এবং আপনার ব্লগে গুগল অ্যাডসেন্স এপ্রুভ দিবে না। তাই ব্লগে policy violation এড়াতে অন্যের কনটেন্ট কপি বা চুরি কার বাদ দিন।

এছাড়াও কনটেন্টের আরেকটি সমস্যার কারণে আপনার সাইটে policy violation সমস্যাটি আসতে পারে। সেটা হলে একই ব্লগে বা একাধিক ব্লগে সেম কনটেন্ট আপলোড করা। তাই policy violation এড়াতে এটিও মেনে চলুন।


২/কপি ইমেজ

আপনার ব্লগে policy violation আসার দ্বীতৃয় ও অন্যতম কারণ হতে পারে কপি পেস্ট ইমেজ। আমরা সাধারণত প্রতিটা ব্লগ পোস্টে কম বেশি দু একটা ইমেজ ব্যবহার করি। আর আমরা প্রপেশনাল ইমেজ বা ছবি পেতে অথবা কিছু কষ্ট কমাতে আমরা গুগল থেকে ডাউনলোড করা ইমেজ বা ছবি আমাদের ব্লগে ব্যবহার করি। আর যে কারণেও পলিসি ভাইলেশন আসতে পারে।

তাই এই সমস্যা এড়াতে অব্যশই ইমেজ ব্যবহারের পূর্বে সেটাকে যেকোন অ্যাপ বা সাইট দিয়ে ইডেট করে নিবেন। আরেকটা বিষয় মনে রাখবেন আপনার ব্যাবহারকৃত প্রতিটা ইমেজ যেনো ১০০ কেবির নিচে হয় তাহলে সেটি সাইটের স্প্রিড বিদ্ধতে অনেক বেশি ভূমিকা রাখবে।


৩/ ব্রকেন লিংক

আমরা অনেক সময় আমাদের সাইটের ভিজিটরস বাড়াতে নতুন লেখা আর্টিকেলে পুরাতন কনটেন্টের লিংক ব্যবহার করি বা অন্যসাইটের সাথে গেস্ট পোস্ট ব্যাকলিংক অথবা ভিবিন্ন অ্যাপবা সাইটের লিংক এড করি। কিন্তু যে কোন কারণ বশত আমরা পুরাতন পোস্টের লিংক গুলো আবার ইডেট করি। কিন্তু সেটি হয়ত আমাদের নতুন পোস্ট থেকে ইডেট করতে ভুলে যাই। আর যার কারণেও ব্লগে policy violation আসতে।পারে। তাই যেকোন লিংক চেন্জ করলে সেটি অব্যশই ইডেট করে নিবেন। 

নোট ঃ আমি Policy violation সম্পর্কে আরও কিছু কারণ আলোচনা করব অন্য কোন পোস্টে তাই অব্যশই আমাদের সাথেই থাকবেন। 

টপিক ট্যাগ

ব্লগে পলিসি ভাইলেশন।

পলিসি ভাইলেশন কি?

কিভাবে পলিসি ভাইলেশন সমস্যার সমাধান করব

ব্লগে পলিসি ভাইলেশন আসার কারন

পলিসি ভাইলেশন সমাধান কি?

মন্তব্যসমূহ